fbpx

মেডিকেল/ইঞ্জিনিয়ারিং/বিশ্ববিদ্যালয় ভর্তি প্রস্তুতি- বিজ্ঞান বিভাগ

তোমারা যারা এবার বিজ্ঞান বিভাগ থেকে এইচ এস সি পরীক্ষা দিচ্ছ, তারা শিক্ষা জীবনের সব থেকে গুরুত্বপূর্ণ সময়টা এখন পার করছ। আর সব মা-বাবাদের মত তোমাদেরও স্বপ্ন ডাক্তার/ইঞ্জিনিরার হবার, মেকানিকাল, রোবটিক্স বা ফার্মাসি নিয়ে বুয়েট, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় বা শাহ জালাল প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ে পড়ালেখা করার। দিন শেষে কে, কোথায়, কি নিয়ে পড়ালেখা করবে তা নির্ধারণ করবে হাতে পাওয়া এই কয়েক মাসের সময়। তাই প্রয়োজন সঠিক দিক নির্দেশনা আর অধ্যবসায়। এর কোন বিকল্প নেই।

কিভাবে প্রস্তুতি শুরু করবে তা বলার আগে নিজের জীবনের একট ঘটনা শেয়ার করি-
২০০৮ সালে এইচ এস সি পরীক্ষার পর আমার লক্ষ ছিল ইঞ্জিনিয়ারিং পড়া, আর সে লক্ষে ভর্তি হয়ে যাই বুয়েট ভর্তি কোচিং এ। পড়ালেখায় মোটামুটি ভাল ছিলাম, তবে বুঝতে পারলাম এত প্রতিযোগীতার মধ্যে টিকতে হলে আরো বেশি পরিশ্রম করতে হবে। দিনে ১৪-১৬ ঘন্টা তখন কোচিং এর পড়া, ম্যাথ প্র্যাক্টিস, মডেল টেস্ট দিতাম। দেড় মাস পর যখন রেসাল্ট আসলো ৪.৫ তখন নিজেই বিশ্বাস করতে পারছিলাম না। বুয়েট তো দূরে থাক কোন প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের ফর্ম কেনার যোগ্যতা ছিল না। সে সময় শুধু বিজ্ঞানেই ৫.০০ পেয়েছিল ১১ হাজারের উপরে। সবাই বলেছিল জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয় ছাড়া আমার আর কোথাও জায়গা নেই। কিন্তু আমি নিজের উপর আস্থা হারাই নি। আর যাই হোক ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে পড়বো এটাই তখন লক্ষ ছিল। আমি আমার অধ্যবসায় চালিয়ে গিয়েছিলাম এবং দিন শেষে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় থেকেই অনার্স ও মাস্টার্স শেষ করে এখন একটা ইন্টারনেশনাল অর্গেনাইজেসনে চাকরী করছি। আমার সেই বাজে রেজাল্ট আমাকে আটকাতে পারে নি। তোমাদের শুধু একটা কথাই বলব, যত কঠিন সময় আসুক নিজের উপর আস্থা রাখো আর লেগে থাকো। কোন একদিক দিয়ে সফলতা আসবেই।

এবার আসি কিভাবে তোমরা প্রস্তুতি নিবে সে সম্পর্কে-
মেডিকেল/ডেন্টাল ভর্তি প্রস্তুতিঃ
সারা বাংলাদেশে সরকারী মেডিকেল ভর্তি পরীক্ষা সমন্নিত ভাবেই হয়ে থাকে। মেডিকেল ভর্তি পরীক্ষায় বায়োলজি, পদার্থ বিজ্ঞান, রসায়ন, ম্যাথ, বাংলা ও ইংরেজী বিষয় থেকে প্রশ্ন আসবে। তবে বিশ্ববিদ্যালয় বা বুয়েটের থেকে এর প্রশ্নের ধরণ আলাদা হয়। তাই মেডিকেলের জন্য একটু আলাদা প্রস্তুতি জরুরী। বর্তমানে মেডিকেল ভর্তি প্রস্তুতির জন্য বাজারে ভাল মানের বেশ কিছু গাইড বই আছে যা তুমি অনুসরন করতে পারো।
যেমন-    
জয়কলির– মেডি প্রশ্ন ব্যাংকঃ মেডিকেল ও ডেন্টাল, মেডিঃ পদার্থ বিজ্ঞান, বায়োলজি, রসায়ন, সাধারণ জ্ঞান ইত্যাদি বিষয় ভিত্তিক গাইড বই;   
দি রয়েল গাইড– (মেডিকেল সিরিজ )- মেডিকেল ও ডেন্টাল প্রশ্ন ব্যাংক, পদার্থ বিজ্ঞান, বায়োলজি, রসায়ন ইত্যাদি বিষয় ভিত্তিক গাইড বই;     
প্রয়োজনীয় বই কিনে পড়া শুরু কর। এইচ এস সি এর প্রস্তুতির পাশাপাশি প্রতিদিন ২টা করে  আগের প্রশ্ন পত্র সমাধান কর এবং বিষয় ভিত্তিক বই গুলো থেকে অন্তত ১০ পাতা করে পড়। তাতেও অনেক এগিয়ে যাবে। ফেসবুকে ভর্তি প্রস্তুতির কিছু গ্রুপ আছে। আপডেট থাকতে সেগুলোতে যুক্ত থাক।

প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয় ভর্তি প্রস্তুতিঃ
প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয় বলতে মূলত আমরা বুয়েট, কুয়েট, চুয়েট, শাহ জালাল প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়, নোয়াখালি, ইসলামিক প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়, সহ অন্যান্য সকল প্রযুক্তি বিশ্ব বিদ্যালয় গুলোকে বুঝিয়ে থাকি। এই সকল বিশ্ববিদালয় গুলোতে – সিভিল ইঞ্জিনিয়ারিং, মেকানিকাল, ইলেক্ট্রিক ও ইলেক্ট্রনিক, মেরিন, টেলি কমুনিকেশন, আর্কিটেকচার, পাওয়ার টেকনোলজি সহ নানাবিধ প্রযুক্তি সংক্রান্ত বিষয়ের উপর অনার্স কোর্স চালু আছে। তোমার যদি বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি নিয়ে পড়ালেখার ইচ্ছা থাকে তাহলে এখন থেকেই আদা জল খেয়ে নামো। সামনে টাফ কম্পিটিসন অপেক্ষা করছে।    
এখন কথা হল, এই যুদ্ধের জন্যে কিভাবে প্রস্তুতি নিবে? প্রথমে প্রশ্ন ব্যাংক দিয়ে শুরু কর, সাথে কিছু বিষয় ভিত্তিক ভর্তি গাইড কিনে নিতে পারো। একটা রুটিন তৈরী কর আগামী একমাসের। প্রতিদিন ২টা করে প্রশ্ন পত্র থেকে পরীক্ষা দাও। অবশ্যই ঘড়ি ধরে দিবে। ১০টা টেস্ট দেয়া হলেই বুঝতে পারবে তোমার দুর্বলতা কোন দিকে। প্রশ্ন সহজ/কঠিন যেমনই লাগুক ঘাবরানোর কিছু নেই। পড় আর প্রাক্টিস কর, কঠিন বিষয় গুলোই এক মাসের মধ্যে সহজ হওয়া শুরু করবে।        
যে প্রশ্ন ব্যাংক ও গাইড বই দেখতে পারো-    
জয়কলি বুয়েট সিরিজ, জয়কলি বিচিত্রা- পদার্থ, রসায়ন, গনিত;   
দি রয়েল গাইড- (ইঞ্জিনিয়ারিং সিরিজ )- বুয়েট, কুয়েট, চুয়েট প্রশ্ন ব্যাংক, পদার্থ বিজ্ঞান, বায়োলজি, রসায়ন ইত্যাদি বিষয় ভিত্তিক গাইড বই;     
পারফেক্ট ডুয়েট সিরিজ- সিভিল ও আর্কিটেকচার, ইলেক্ট্রকাল ও ইলেক্ট্রনিকস।

বিশ্ববিদ্যালয় ভর্তি প্রস্তুতিঃ
সাধারণত প্রত্যেকটি বিশ্ববিদ্যালয়ের বিজ্ঞানের বিভিন্ন বিষয় গুলোকে ‘ক’ ইউনিট এর মধ্যে অন্তর্ভুক্ত করে ভর্তি পরীক্ষা নেয়া হয়। এখন অনেক বিশ্ববিদ্যালয়ে প্রযুক্তি বিষয়ক বিভিন্ন কোর্সও অন্তর্ভুক্ত করা হয়েছে। কিছু বিশ্ববিদ্যালয় সমন্নিত ভর্তি পরীক্ষার দিকে গেলেও ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় সহ প্রথম সারির অধিকাংশ বিশ্ববিদ্যালয় স্বতন্ত্র ভর্তি পরীক্ষাই নিবে। নুন্যতম তিন বা তার অধিক বিশ্ববিদ্যালয় টার্গেট করে প্রস্তুতি নাও।
কোন কোন বিশ্ববিদ্যালয় তোমার পছন্দের তালিকায় রাখবে তার জন্য নিচের ধাপগুলো অনুসরণ করতে পারো-
তুমি যে বিষয়ে পড়তে আগ্রহী তা কোন কোন বিশ্ববিদ্যালয়ে আছে> এদের মধ্যে পড়ালেখার মান ভাল কোন গুলোতে > কোন সেশন জট আছে কিনা > আবাসিক অবস্থা ও বর্তমান রাজনৈতিক পরিবেশ কেমন?
তোমার পরিচিত যারা সংশ্লিষ্ট বিশ্ববিদ্যালয়ে পড়ে তাদের থেকে বা ফেসবুকে বিভিন্ন গ্রুপ থেকে আপডেট তথ্য নিতে পারবে।
এবার প্রশ্ন ব্যাংক, বিষয় ভিত্তিক গাইড বই কিনে ওই একই পদ্ধতিতে একটি রুটিন করে এইচ এস সি ও ভর্তি প্রস্তুতির পড়া শুরু করে দাও। এই কয়েক মাস মনদিয়ে পড়, লেগে থাকো আর নিজের উপর বিশ্বাস রাখ, সফলতা আসবেই।

ভর্তি প্রস্তুতির সকল প্রশ্ন ব্যাংক ও গাইড বই দ্রুত হোম ডেলিভারি পেতে নিচের বাটনে ক্লিক কর। তোমার প্রয়োজনীয় বইগুলো বাংলাদেশের যেকোন প্রান্তে মাত্র ২ দিনে পৌছে দেবার গ্যারান্টি দিচ্ছি।

পোস্টটি প্রয়োজনের সময় খুঁজে পেতে শেয়ার করে নিজের ওয়ালে রেখে দাও। আর তোমাদের অন্যান্য বন্ধুদের ট্যাগ করে ওদের দেখার সুযোগ করে দাও আর একসাথে প্লান কর ভর্তি প্রস্তুতির। দেখবে এটা তোমাকে ভাল প্রস্তুতি নিতে আরো বেশি হেল্প করবে। শুভ কামনা রইল।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *