fbpx

যে তথ্যটি না জানলে মিস হবে দেশসেরা কলেজে ভর্তির সহজ সুযোগ

যদি জিজ্ঞেস করা হয় বাংলাদেশের সেরা ৪টি কলেজের নাম কি? তবে চোখ বন্ধ করে যে কেউ বলে
দিবে নটর ডেম, ভিকারুন্নিসা, হলিক্রস আর সেন্ট যোসেফ কলেজের নাম। কারন বুয়েট, মেডিকেল,
ঢাকা ইউনিভার্সিটি সহ টপ ইউনিভার্সিটি গুলোর ভর্তি পরীক্ষার মেধা তালিকায় থাকে এই কলেজ
গুলোর শিক্ষার্থীদের নাম। বিগত ১০ বছরের রেসাল্ট ঘাটলে দেখা যায় এ সব কলেজের অধিকাংশ
শিক্ষার্থীই দেশের সেরা ইউনিভার্সিটি গুলোতে চান্স পেয়েছে।
(যদি জানতে চাও দেশের সেরা কলেজ গুলোর সুযোগ সুবিধা আর ভর্তি প্রস্তুতির বিষয়ে তবে সম্পূর্ণ লেখাটি পড়ে দেখ। অন্যথায় সময় নষ্ট করার দরকার নেই)

কেন এই কলেজ গুলোতে তোমার ভর্তি হয়া উচিৎ-
১। দেশসেরা প্রতিভাবান শিক্ষক যাদের লেখা বই আমরা কলেজ জীবনে পড়েথাকি, তারা এই
কলেজগুলোতে পড়িয়ে থাকেন। এরা তোমার বেসিকটা গড়ে তুলবে যা তোমাকে ভর্তি যুদ্ধে অনেকখানি
এগিয়ে নিয়ে যাবে। ভার্সিটি ভর্তি যুদ্ধে শিক্ষার্থীদের পিছিয়ে পরার সবথেকে বড় কারণ হল তাদের
বেসিক দুর্বল থাকে আর প্রশ্ন দেখে মাথায় হাত পরে।
২। যে ছেলেটা বা মেয়েটা বুয়েট/মেডিকেল/ঢাবি তে মেধা তালিকায় থাকবে তুমি হতে পারবে তাদেরই
একজন।
৩। দেশের বিভিন্ন ট্যালেন্ট হান্ট প্রতিযোগিতা আর আন্তর্জাতিক অলিম্পিয়াডে দেশকে
প্রতিনিধিত্ব করে এই কলেজের শিক্ষার্থীরা।
৪। এখানে অনেক সক্রিয় কিছু ক্লাব। এই ক্লাবগুলো প্রায়ই বিভিন্ন সেমিনার,ওয়ার্কশপের মাধ্যমে
আগ্রহী শিক্ষার্থীদের দক্ষতা বাড়াতে সাহায্য করে।
৫। এই কলেজ গুলোতে আছে অত্যাধুনিক ল্যাবের সুবিধা। এইচ এস সি পরীক্ষায় ভাল মার্ক পাবার
জন্য ল্যাব ওয়ার্ক খুবই গুরুত্বপূর্ণ।
কলেজ জীবনের সময়টাকে যদি সারাজীবনের পুঁজি করতে চাও, তবে চেষ্টা করো এই চারটি কলেজের
যেকোনটিতে ভর্তি হবার।

ভর্তি প্রস্তুতিঃ
অন্যান্য কলেজের জন্য চয়েজ লিস্ট দিলেও এই কলেজগুলোতে ভর্তি পরীক্ষা দেবার জন্য তোমাকে
ভর্তি ফর্ম পূরন করে জমা দিতে হবে। সাইন্স, আর্টস ও কমার্সে এপ্লাই করার জন্য নূন্যতম কত
পয়েন্ট দরকার তা কলেজের ওয়েবসাইট ও ভর্তি ফর্মে উল্লেখ থাকে।

ভর্তি পরীক্ষা রিটেন/এমসিকিউ আকারে হয়ে থাকে। অনেক সময় ভাইভাও নিয়ে থাকে।
লিখিত পরীক্ষা বোর্ড বই অথাৎ ৯-১০ এর পাঠ্যপুস্তক এর আলোকে আসবে।
প্রশ্ন MCQ+CQ(ছোট খাটো প্রশ্ন,Math, রচনা, এক কথার প্রশ্ন) উভয় ধরণের হতে পারে, আবার শুধু MCQ
Type এর হতে পারে ।
পরীক্ষা মার্ক ১০০ হতে পারে
লিখিত পরীক্ষা =50
মৌখিক পরীক্ষা = 50
যে বই গুলা বেশি করে পরতে হবে :বাংলা, ইংরেজি, ICT
আর যে যে বিভাগ এ ঐ বিভাগ এর বই গুলা ভালো করে পড়বে। যেমন:
বিজ্ঞান বিভাগ : উচ্চতর গণিত, পদার্থ, রসায়ন, জীববিজ্ঞান
ব্যবসায় শিক্ষা বিভাগ : হিসাববিজ্ঞান,Finance
ভাইভাতে ফরমাল পোশাকে যাওয়া ভাল।

এই সময়ে কলেজ ভর্তি প্রস্তুতির জন্য তোমার সেরা বন্ধু হবে নেক্সাস প্রকাশনীর কলেজ ভর্তি
গাইড ও প্রশ্ন ব্যাংক। নটর ডেম, হলি ক্রস ও সেন্টযোসেফ কলেজ ভর্তি পরীক্ষার জন্য বাজারের
সবচেয়ে বিক্রিত বই “নেক্সাস (NEXUS)”। কারন এই গাইড গুলোতে আছে-
ক) নটর ডেম, হলি ক্রস ও সেন্টযোসেফ কলেজ ভর্তি পরীক্ষার প্রশ্ন ব্যাংক
খ) সকল প্রশ্নের ব্যাখ্যা সহ সমাধান
গ) সাজেশন সহ গাইড
ঘ) নেক্সাস (NEXUS) বই থেকে বিগত বছরগুলোতে শতভাগ প্রশ্নই হুবুহু কমন ছিল
ঙ) ভালমত পড়লে এই গাইড বই দিয়েই অন্য যেকোন কলেজে ভর্তি পরীক্ষায় সফল হবে
যদি চাও দেশসেরা কলেজে পড়ে নিজের বিশ্ববিদ্যালয় জীবনকে আরো নিশ্চিৎ করতে তবে এখনি
উঠেপরে লাগো। ভালমতো ১০ দিন প্রস্তুতি নিলেই যথেষ্ঠ।
আর নেক্সাস কলেজ ভর্তি গাইড ও প্রশ্ন ব্যাংক পেতে ক্লিক করো নিচের লিংকে- (স্টক সীমিত)

One thought on “যে তথ্যটি না জানলে মিস হবে দেশসেরা কলেজে ভর্তির সহজ সুযোগ

  1. md.abir says:

    এই বছর (২০২০) করোনা পরিস্থিতি তে কলেজ admission test কি হবে? নাকি ssc মার্কশিট অনুযায়ী ভর্তি হবে?

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *